চাকরিপ্রার্থীদের বয়সে ছাড় দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার

0
129
চাকরিপ্রার্থীদের বয়সে ছাড় দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার
চাকরিপ্রার্থীদের বয়সে ছাড় দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার

ঢাকা: করোনা সংক্রমণের কারণে মানুষের চলাচলে ‘বিধিনিষেধ’ বা ‘লকডাউনে’ সরকারি চাকরির পরীক্ষাগুলো নিতে না পারায় এ বছরও চাকরিপ্রার্থীদের বয়সে ছাড় দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বাংলানিউজকে জানিয়েছেন, যে সময় থেকে চাকরির বিজ্ঞপ্তিগুলো হওয়ার কথা কিংবা পরীক্ষা নেওয়ার কথা সেই সময় থেকে কয়েক মাস বয়সে ছাড় পাবেন চাকরিপ্রার্থীরা।

করোনা মহামারির কারণে গত ৫ এপ্রিল থেকে ‘লকডাউন’ ঘোষণা করে সরকার। তা পর্যায়ক্রমে আরও কঠোর হয়ে ৭ জুলাই পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। সংক্রমণের ঊধ্বগতির পরিস্থিতির কারণে সরকারি চাকরির বিজ্ঞপ্তিগুলো আটকে আছে, কিছু পরীক্ষাও নেওয়া অসম্ভব হয়ে পড়েছে। এই অবস্থায় দেশে বেকারের সংখ্যা বাড়ছে। অন্যদিকে সরকারি চাকরিতে শূন্যপদ তিন লাখের বেশি।

সম্প্রতি প্রকাশিত জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ‘স্ট্যাটিসটিকস অব সিভিল অফিসার্স অ্যান্ড স্টাফস, ২০২০’ শীর্ষক প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে দেশে সরকারি চাকরিতে তিন লাখ ৮০ হাজার ৯৫৫টি পদ শূন্য রয়েছে।

গত ১৫ জুন প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, দেশে সরকারি চাকরিতে মোট অনুমোদিত পদ ১৮ লাখ ৮৫ হাজার ৮৬৮টি। এর মধ্যে কর্মরত রয়েছেন ১৫ লাখ ৪ হাজার ৯১৩ জন, সেখানে নারী চার লাখ ১৪ হাজার ৪১২ জন। পদ শূন্য রয়েছে তিন লাখ ৮০ হাজার ৯৫৫টি।

প্রতিবেদনের তথ্যানুযায়ী, শূন্য পদের মধ্যে প্রথম শ্রেণির পদ ৪৬ হাজার ৬০৩টি, দ্বিতীয় শ্রেণির পদ ৩৯ হাজার ২৮টি, তৃতীয় শ্রেণির পদ এক লাখ ৯৫ হাজার ৯০২টি এবং চতুর্থ শ্রেণির পদ ৯৯ হাজার ৪২২টি।

প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির পদগুলোতে সরাসরি সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি) পরীক্ষার মাধ্যমে নিয়োগ করে থাকে। তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির পদগুলোয় সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় এবং অধীন বিভাগ বা দপ্তর-সংস্থা থেকে নিয়োগের ব্যবস্থা করা হয়।

কিন্তু করোনা মহামারির কারণে চাকরির বিজ্ঞপ্তিগুলোও তেমন প্রকাশ করতে পারছে না সরকার। আর নির্ধারিত কিছু পরীক্ষা স্থগিত রয়েছে। অন্যদিকে সাধারণ চাকরিপ্রার্থীদেরও নির্ধারিত ৩০ বছর বয়স অতিক্রম করছে।

তবে বিষয়টি সরকারের নজরে আছে বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।
তিনি বাংলানিউজকে বলেন, করোনায় বিধিনিষেধের কারণে চাকরিপ্রার্থীরা বয়সের দিক থেকে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। তাদের ক্ষতি পুষিয়ে দিতে বয়সটা যাতে ছাড় দেওয়া হয় সেই পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, যে সময়টা তাদের ক্ষতি হয়েছে, যখন যে সময় বিজ্ঞপ্তি হওয়ার কথা ছিল, আগের সময় ধরেই পরবর্তীকালে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে। এতে বয়সে ছাড় পাবেন প্রার্থীরা।

মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলোকে চাকরিপ্রার্থীদের বয়সে ছাড় দিয়ে বিজ্ঞপ্তি দেওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হবে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

গত বছর করোনা মাহামারিত সাধারণ ছুটির কারণে ক্ষতিগ্রস্ত চাকরিপ্রার্থীদের বয়সের ছাড় দেয় সরকার। ওই বছর ২৫ মার্চ যাদের বয়স ৩০ বছর পূর্ণ হয়েছিল তাদের পরবর্তী পাঁচ মাস পর্যন্ত সরকারি চাকরিতে আবেদনের সুযোগ দিয়ে মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলোকে নির্দেশনা দেয় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

FB Comments

Leave a Reply